ওজু করতে গিয়ে পড়ে যান, হাসপাতালে মা’রা গেছেন ইসলামী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান লতিফ নেজামী

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ নেজামী মা’রা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার (১১ মে) রাত ৮টা ২৫ মিনিটে ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে মৃ’ত্যুবরণ করেন তিনি।

ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ জানান, সায়েদাবাদের বাসায় ইফতারের পর ওজু করতে গিয়ে পড়ে যান তিনি। তারপর কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে মৃ’ত ঘোষণা করা হয়।মাওলানা নেজামীর মৃ’ত্যুতে দলীয় নেতাকর্মী এবং ইসলামি অঙ্গনে শো’কের ছায়া নেমে এসেছে। অনেকে তার মৃ’ত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে ছু’টে যান।

আব্দুল লতিফ নেজামীর মৃ’ত্যুতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদা, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

মৃ’ত্যুকালে আবদুল লতিফ নেজামীর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তিনি দুই ছেলে, দুই মেয়ে, স্ত্রীসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ নেজামী মা’রা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার (১১ মে) রাত ৮টা ২৫ মিনিটে ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে মৃ’ত্যুবরণ করেন তিনি। ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ জানান, সায়েদাবাদের বাসায় ইফতারের পর ওজু করতে গিয়ে পড়ে যান তিনি।

তারপর কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে মৃ’ত ঘোষণা করা হয়।মাওলানা নেজামীর মৃ’ত্যুতে দলীয় নেতাকর্মী এবং ইসলামি অঙ্গনে শো’কের ছায়া নেমে এসেছে। অনেকে তার মৃ’ত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে ছু’টে যান। আব্দুল লতিফ নেজামীর মৃ’ত্যুতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদা,

বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মৃ’ত্যুকালে আবদুল লতিফ নেজামীর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তিনি দুই ছেলে, দুই মেয়ে, স্ত্রীসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।